আমাদের দেহের খাদ্য না ঔষধের প্রয়োজন ?

আমাদের দেহের খাদ্য না ঔষধের প্রয়োজন ?

আপনি যা খান তা আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উপর গভীর প্রভাব ফেলে। সৃষ্টির কাল থেকেই মানুষ নিজেই নিজের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার ব্যবস্থা করে নিয়েছিল। তবে স্ময়ের পরিবর্তন ও বিকাশের সাথে সাথে মানুষ তাদের জীবনযাত্রা ও বেঁচে থাকার পদ্ধতির ও পরিবর্তন করে নিয়েছে।

গবেষণাতে দেখা গেছে যে খাদ্যাভ্যাসের ফলে আমাদের দেহে রোগের ঝুঁকি দেখা যায়।যদিও আমরা বিশ্বাস করি খাদ্যই ঔষধ, অনেক অসুস্থতা এবং রোগ আহার নিয়ন্ত্রণ করে, জীবনশৈলী নিদর্শনের মাধ্যমে প্রতিরোধ, চিকিৎসা ও নিরাময় করা যায়।

খাদ্যের ভেতরেই লুকিয়ে আছে ঔষধির গুনাবলি।

খাবারে পুষ্টিকর উপাদানগুলি শরীরকে রোগ থেকে রক্ষা করে সুস্থ রাখে। পরিপূরক ও পুষ্টিকর খাবারগুলির উপাদান দেহকে সুস্থ ও নিরোগ রাখে। শরীরের ভিটামিন এবং খনিজ পদার্থের প্রয়োজন। এই সমস্ত ভিটামিন এবং খনিজ স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যা আমরা আমাদের খাবার দাবার থেকে পাই।

পুষ্টিকর খাদ্য যেমন শাকসব্জী, ফলমূল, মটরশুটি এবং শস্যে প্রচুর উপকারী যৌগ বর্তমান, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট কোষগুলিকে ক্ষতি হওয়া থেকে রক্ষা করে ও দেহকে সুস্থ রাখে।

গবেষণার ফলে দেখা যায় যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাদ্যগ্রহণ করলে হতাশা, ডায়াবেটিস, ডিমেনশিয়া এবং হৃদরোগের সমস্যা দূর হয় ও সুস্থ জীবন যাপন করা যায় ।

উপকারী যৌগ, ফাইবার, প্রোটিন, স্বাস্থ্যকর স্নেহ জাতীয় খাবার সুস্থ ডায়েটের এক প্রয়োজনীয় অঙ্গ। এই উপাদানগুলি যথাক্রমে হজম, প্রতিরোধ ক্ষমতা, পেশী সংশ্লেষণ, বিপাক এবং হার্ট ভালো রাখতে সহায়তা করে।

ফিয়োনা হার্বালসের এম ডি ডঃ সমীর কুমার ধাড়ার মতে, যথাযথ ভাবে খাদ্যতালিকা অনুসারে খাদ্য গ্রহন না করলে দেহে ঔষধের প্রয়োজন। যথাযথ ভাবে খাদ্যতালিকা অনুসারে খাদ্য গ্রহন অসুসস্থতা ও রোগের উত্থানকে বাধা দেয়। একজন বুদ্ধিদিপ্ত এবং জ্ঞানী ব্যক্তি সর্বদা কোনও রোগ নিরাময়ের চেয়ে রোগ প্রতিরোধ করতে পছন্দ করবেন। ডাঃ ধাড়া বলেছেন “ঈশ্বর মানুষদের পাশাপাশি প্রাণীকেও সৃষ্টি করেছেন, কিন্তু আমরা কি প্রাণীকে ওষুধ খেতে দেখি?

সাধারণ খাদ্যাভাস আমাদের বাঁচিয়ে রাখে এবং সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।
স্বাস্থ্যকর ও ওষুধমুক্ত জীবনযাপন করতে দয়া করে সঠিক খাদ্যতালিকা অনুসরণ করুন এবং আরও ভাল ফলাফলের জন্য ফিয়োনা পুষ্টিবিদের পরামর্শ নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *